বিডিইউ-তে ইআরপির মাধ্যমে ডিজিটাল সেবার কার্যক্রম উদ্বোধন


শিক্ষার্থীদের ডিজিটাল সার্ভিস প্রদানের লক্ষ্যে ইআরপি (এন্টারপ্রাইজ রিসোর্স প্ল্যানিং) সফটওয়্যার উদ্বোধন করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি,বাংলাদেশ।

০৩ অক্টোবর ২০২১(রোববার)সকালে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাম্পাসে এই সফটওয়্যার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড.মুনাজ আহমেদ নূর।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব)মোঃ আশরাফ উদ্দিন,সিনিয়র সিস্টেম এ্যানালিস্ট মুহাম্মদ শাহীনূল কবীর,শিক্ষা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান (অতিরিক্ত দায়িত্ব)মোঃ আশরাফুজ্জামান,আইসিটি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান(অতিরিক্ত দায়িত্ব)ফারজানা আক্তার,প্রোগ্রামার অনিত কুমার রায় সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক,কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ইআরপি সফটওয়্যার উদ্বোধন শেষে মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড.মুনাজ আহমেদ নূর বলেন,বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি,বাংলাদেশ এর প্রশাসনিক,একাডেমিক এবং শিক্ষা সেবা ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রদানের লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব তত্ত্বাবধানে ইআরপি (এন্টারপ্রাইজ রিসোর্স প্ল্যানিং) সফটওয়্যার প্রস্তুত করা হয়েছে। এর আগে শিক্ষার্থীদের ডিজিটাল সেবা প্রদানের লক্ষ্যে আমরা এক্সাম ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (ইএমএস), লার্নিং ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (এলএমএস), এডমিশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (এএমএস), অনলাইন রিকুটমেন্ট সফটওয়্যার (ওআরএস) এবং মাই বিডিইউ মোবাইল অ্যাপ তৈরি করেছি। এই ইআরপি (এন্টারপ্রাইজ রিসোর্স প্ল্যানিং)সফটওয়্যার এর মাধ্যমে কাগজ বিহীন পরিবেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের সম্পূর্ণ পরিবেশ বান্ধব কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।

মাননীয় উপাচার্য বলেন,এই ইআরপি (এন্টারপ্রাইজ রিসোর্স প্ল্যানিং) সফটওয়্যার একটি সমন্বিত সমাধান যার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন তথ্যের প্রক্রিয়াকরণ এবং রক্ষণাবেক্ষণ করা হবে।বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্পদ ব্যবস্থাপনা,সুবিধা ব্যবস্থাপনা,পরিবহন, গ্রন্থাগার, কর্মীদের বিবরণ, হিসাব, মানবসম্পদসহ সকল ধরনের কার্যক্রম এর মাধ্যমে ডিজিটালি সম্পন্ন করা হবে।

মাননীয় উপাচার্য বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে স্বাধীনতার ৫০ বছরের মধ্যেই দেশের সকল অবকাঠামো এবং সেবা ডিজিটাল করার কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির এই উদ্যোগ।

মাননীয় উপাচার্য আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব আহমেদ ওয়াজেদ-এর নির্দেশনা ও আন্তরিকতার কারণে বাংলাদেশ আজ ডিজিটাল বাংলাদেশে পরিণত হয়েছে এবং দ্রুত গতিতে বাস্তবায়িত হচ্ছে উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশের দিকে এগিয়ে যাওয়ার কাজ।

তিনি বলেন,জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি,বাংলাদেশ সফটওয়্যারটির কাজ সম্পন্ন করতে পেরেছে যা আমাদের জন্য বেশ গর্বের।